শিরোনাম :
লিটারে ৪ টাকা বেড়েছে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বিএনপি নির্বাচন ও গণতন্ত্রবিরোধী অবস্থান নিয়েছে: কাদের গরমে বারবার গোসল করছেন? জেনি নিন কী হচ্ছে শরীরের বাংলাদেশে বিক্রি করা নেসলের শিশুখাদ্য সেরেলাক নিয়ে ভয়ংকর তথ্য শুক্রবার শিল্পী সমিতির নির্বাচন, কার বিপক্ষে কে লড়ছেন বিএনপির চিন্তাধারা ছিল অন্যের কাছে হাত পেতে চলবো: প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারে বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত শহরে কোণঠাসা জান্তা আইপিএল থেকে ডাক পেয়েও যে কারণে যেতে পারেননি শরিফুল সুন্দরবন সংশ্লিষ্ট পেশাজীবী ও স্থানীয় সুধী সমাজের সাথে জনসচেতনতা মূলক মতবিনিময় ১১০০ কোটি টাকার প্রকল্পে কলা-রুটি বাবদ ব্যয় হবে ৪৫০ কোটি

১০ টাকা চাওয়ায় সন্তানকে হত্যা করলেন মা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৮৬

লক্ষ্মীপুরে ১০ টাকা চাওয়ায় সন্তানকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার মায়ের বিরুদ্ধে। নিহত শিশুর নাম মো. কাউছার (৮)।

সোমবার মধ্যরাতে সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জালাল আহম্মদ হাওলাদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কাউছার একই এলাকার কাভার্ডভ্যানচালক মো. রাসেলের ছেলে ও স্থানীয় লোকমানিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

এ ঘটনায় মা স্বপ্না বেগমসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে পুলিশের কাছে শ্বাসরোধে ছেলেকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন মা স্বপ্না।

স্থানীয়রা জানান, গাড়িচালক হওয়ায় বেশিরভাগ সময়ই কাউছারের বাবা রাসেল লক্ষ্মীপুরের বাইরে থাকতেন। রাতে শিশুটি তার মা স্বপ্নার কাছে ১০ টাকা চায়। এতে তাকে মারধর করা হয়। একপর্যায়ে স্বপ্না তাকে গলাটিপে ধরে। কিছুক্ষণ পরই কাউছার মারা যায়।

এরপর মারা গেছে বলে স্বপ্না চিৎকার দিয়ে কান্না শুরু করেন। এরআগেও একটি মেয়ে সন্তান স্বপ্নার বাবার বাড়িতে রহস্যজনক কারণে মারা যায়।

এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান জানান, রাসেল দ্বিতীয় বিয়ে করার কারণে সংসারে কলহ চলছিল। পরিবারে অর্থনৈতিক সংকটও দেখা দেয়। এজন্য স্বপ্নার কাছে ১০ টাকা চাইলে শিশুটিকে ক্ষিপ্ত হয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়।

পরে শিশুটিকে ওড়না দিয়ে পেঁচিয়ে পাখার (ফ্যান) সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে অপপ্রচার চালানোর চেষ্টা করা হয়।

তিনি বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে শিশুর মাসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। পরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে স্বপ্না শ্বাসরোধ করে ছেলেকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত ২০২১
Design and Developed by IT Craft in association with INTENT